সংবাদ শিরোনামঃ
দেশে ফিরে বিয়ে করা হলো না প্রবাসী ফরহাদের এয়ারপোর্টে নিরাপত্তা তল্লাশির সময়ে যেসব বিষয়ে খেয়াল রাখবেন নতুন সিদ্ধান্ত নিলো আরব আমিরাতের এমিরেটস এয়ারলাইন্স কাতারে ৮টি কারণে আবেদন গ্রহন করা হচ্ছেনা কোম্পানি পরিবর্তনের দেশে সড়কপথে যান চলাচল না করায় চাপ বেড়েছে আকাশপথে মদনে ৫০ তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত ৬ই নভেম্বর মদনে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত মদন পল্লীতে নারী লোভী সুমন গ্রেফতার Top 10 Health insurance companies in USA মিজানুর রহমান আজহারীর যুক্তরাজ্যের ভিসা বাতিলের নেপথ্যে যারা অর্থাভাবে ১৭ দিন ধরে মালয়েশিয়ার মর্গে পড়ে আছে বাংলাদেশীর লাশ নিজের মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করল ভারতের বিএসএফ সেনা ধর্ম পরিবর্তন করে বিয়ে; স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবীতে স্বামীর বাড়িতে আত্মহত্যার চেষ্টা মদনে জাতীয় যুব দিবস উদযাপন উপলক্ষে সনদপত্র ও পুরস্কার বিতরণ কাতারে গতমাসের তুলনায় নভেম্বরে বেড়েছে তেলের দাম
এখন কমছে তবে দুই সপ্তাহ পর আবারও বেড়ে যেতে পারে সংক্রমণ

এখন কমছে তবে দুই সপ্তাহ পর আবারও বেড়ে যেতে পারে সংক্রমণ

এখন কমছে তবে দুই সপ্তাহ পর আবারও বেড়ে যেতে পারে সংক্রমণ

দেশে গত দুই সপ্তাহে দৈনিক শনাক্তের চেয়ে দৈনিক সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা বেশি। এই দুই সপ্তাহের মোট হিসাবে মিলছে সেই চিত্র। এদিকে আগামী দুই সপ্তা’হ পর আবারও সং’ক্র’মণের ঊর্ধ্বগতি দেখা যেতে পারে বলে আ’শঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও স্বাস্থ্য অধিদ’প্তরের সাবেক পরিচালক (রো’গ নিয়’ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. বে-নজীর আহম্মেদ বলেন, ‘যেসব এলাকায় এত দিন বাইরে থেকে যাতায়াত কম ছিল, সেখানে স্বাভা’বিকভাবেই বাইরে থেকে সং’ক্র’মণ ঢুক’তে পারেনি। আর যারা ভেতরে আ’ক্রা’ন্ত ছিলেন তাদের বড় একটা অংশ সুস্থ হয়ে ‘সং’ক্রমণমু’ক্ত হয়েছে ওই এলাকার মধ্যে থেকেই। এ কারণেই বিভিন্ন এলাকায় আমরা শ’নাক্ত কমে যাওয়ার চিত্র পাচ্ছি।’

 

তিনি বলেন, ‘আমরা যা হিসাব পাই তাতে দেশে স্বাভাবিক পরি’স্থিতিতে দিনে প্রায় এক কোটি মানুষের চলাচল থাকে এক এলাকা থেকে অন্য এলাকা’য়। এখন বিধি-নিষেধ না থাকায় সেই চলাচলের সুযোগ তৈরি হয়েছে। এতে যাঁরা এখনো আ’ক্রান্ত হয়েও জেনে কিংবা না জেনে চলাফেরা করবেন, তাঁদের মাধ্যমে আবার এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায় সং’ক্রমণ ছড়াবে। ফলে শনাক্তের নিম্ন’মুখী গতি আর বেশি নিচে নামার সুযোগ পাবে না। বরং মাঝপথ থেকেই আবার ওপরে উঠতে থাকবে বা মাঝা’মাঝি জায়গায় গিয়ে স্থবির হয়ে আ’বারও ঝুঁ’কি ছড়াবে।’

 

এই বিশেষজ্ঞ আরো বলেন, ‘এটা ঠিক যে আজী’বন ল’ক’ডা’উন চালানো যাবে না। কিন্তু আমরা তো পর্যাপ্ত টি’কাও দিতে পারছি না। আবার এক দিক থেকে টিকা দিতে দিতে আরেক দিকে টিকার কার্য’কারিতা শেষ হয়ে যাবে। ফলে এক ধরনের সমস্যা থেকেই যাবে। এটা থেকে রক্ষায় টিকার পাশাপাশি স্বাস্থ্য’বিধি মানতেই হবে। বিশেষ করে মাস্ক ব্যবহারের কোনো বিকল্প নেই। টিকা দিয়েও মাস্ক পরতে হবে। কারণ টিকা নেওয়ার পরও তো আক্রান্ত হচ্ছে। বিশেষ করে ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠী টিকা দেওয়ার পরও অন্যদের তুলনায় ঝুঁ’কিতে থাকবেই। আর এই ঝুঁ’কিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর মধ্যেই সবচেয়ে বেশি হচ্ছে ৫০ থেকে ৭০ বছর বয়সের মানুষ।

 

স্বাস্থ্য অধিদ’প্তর ও কালের কণ্ঠ আর্কাইভের তথ্য অনুসারে গত ২৫ জুলাই থেকে ১০ আগস্ট পর্যন্ত দেশে মোট শ’নাক্ত হয়েছে দুই লাখ ১১ হাজার ৬৮৭ জন। গড়ে দিনে শ’নাক্ত হয়েছে ১৪ হাজার ১১২ জন করে। অন্যদিকে ২৫ জুলাই থেকে ১০ আগস্ট পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছে দুই লাখ ৩৫ হাজার ৮৩৯ জন। দিনে গড়ে সু’স্থ হয়েছে ১৫ হাজার ৭২২ জন করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




Design BY NewsTheme