নোটিশঃ
দৈনিক প্রতিবেদন অনলাইন নিউজ পোর্টালের পরীক্ষামূলক সম্প্রচারে আপনাকে স্বাগতম। সারাদেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা ও ক্যাম্পাস ভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে- আগ্রহীরা ই-মেইল করুনঃ dailyprotibedon24@gmail.com
সংবাদ শিরোনামঃ
চরভদ্রাসনে বেইলি ব্রীজের বেহাল দশা মেয়েকে দেখতে টিকিট কেটেও দেশে আসতে পারলো না প্রবাসী বাবা আকর্ষণীয় বেতন দিয়ে তিন হাজার কেবিন ক্রু নেবে এমিরেটস মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে বিচ্ছেদ, ফের বিয়ে করলেন ইভা রহমান সিঙ্গাপুর-মালয়েশিয়ার চেয়ে বাংলাদেশের ডেঙ্গু পরিস্থিতি ভালো ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকা বাংলাদেশীদের সুখবর দিলো মালদ্বীপ ওমরায় খরচ হচ্ছে প্রায় দ্বিগুন মালয়েশিয়ায় ফিরতে পারছেন না ছুটিতে থাকা বাংলাদেশীরা আমিরাতে আইপিএলে দর্শক প্রবেশের অনুমতি মিললেও থাকছে যেসব বিধিনিষেধ কাতারে ডাস্টবিনের বাহিরে ময়লা-আবর্জনা ফেললে ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা কাতারে বাংলাদেশি মালিকানাধীন রেস্টুরেন্টে আকর্ষণীয় বেতনে চাকরির সুযোগ কাতারে সতর্কতা লঙ্ঘনের জন্য দেড় হাজার মানুষকে জরিমানা কাতারে বাংলাদেশি টাকায় রিয়ালের সর্বোচ্চ রেট দিচ্ছে আল জামান এক্সচেঞ্জ হজ ও ওমরাহ কার্যক্রম নিয়ে আলোচনায় সৌদি আরবে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী যে কারণে মালয়েশিয়া থেকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হলো তাদেরকে
এখন কমছে তবে দুই সপ্তাহ পর আবারও বেড়ে যেতে পারে সংক্রমণ

এখন কমছে তবে দুই সপ্তাহ পর আবারও বেড়ে যেতে পারে সংক্রমণ

এখন কমছে তবে দুই সপ্তাহ পর আবারও বেড়ে যেতে পারে সংক্রমণ

দেশে গত দুই সপ্তাহে দৈনিক শনাক্তের চেয়ে দৈনিক সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা বেশি। এই দুই সপ্তাহের মোট হিসাবে মিলছে সেই চিত্র। এদিকে আগামী দুই সপ্তা’হ পর আবারও সং’ক্র’মণের ঊর্ধ্বগতি দেখা যেতে পারে বলে আ’শঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও স্বাস্থ্য অধিদ’প্তরের সাবেক পরিচালক (রো’গ নিয়’ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. বে-নজীর আহম্মেদ বলেন, ‘যেসব এলাকায় এত দিন বাইরে থেকে যাতায়াত কম ছিল, সেখানে স্বাভা’বিকভাবেই বাইরে থেকে সং’ক্র’মণ ঢুক’তে পারেনি। আর যারা ভেতরে আ’ক্রা’ন্ত ছিলেন তাদের বড় একটা অংশ সুস্থ হয়ে ‘সং’ক্রমণমু’ক্ত হয়েছে ওই এলাকার মধ্যে থেকেই। এ কারণেই বিভিন্ন এলাকায় আমরা শ’নাক্ত কমে যাওয়ার চিত্র পাচ্ছি।’

 

তিনি বলেন, ‘আমরা যা হিসাব পাই তাতে দেশে স্বাভাবিক পরি’স্থিতিতে দিনে প্রায় এক কোটি মানুষের চলাচল থাকে এক এলাকা থেকে অন্য এলাকা’য়। এখন বিধি-নিষেধ না থাকায় সেই চলাচলের সুযোগ তৈরি হয়েছে। এতে যাঁরা এখনো আ’ক্রান্ত হয়েও জেনে কিংবা না জেনে চলাফেরা করবেন, তাঁদের মাধ্যমে আবার এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায় সং’ক্রমণ ছড়াবে। ফলে শনাক্তের নিম্ন’মুখী গতি আর বেশি নিচে নামার সুযোগ পাবে না। বরং মাঝপথ থেকেই আবার ওপরে উঠতে থাকবে বা মাঝা’মাঝি জায়গায় গিয়ে স্থবির হয়ে আ’বারও ঝুঁ’কি ছড়াবে।’

 

এই বিশেষজ্ঞ আরো বলেন, ‘এটা ঠিক যে আজী’বন ল’ক’ডা’উন চালানো যাবে না। কিন্তু আমরা তো পর্যাপ্ত টি’কাও দিতে পারছি না। আবার এক দিক থেকে টিকা দিতে দিতে আরেক দিকে টিকার কার্য’কারিতা শেষ হয়ে যাবে। ফলে এক ধরনের সমস্যা থেকেই যাবে। এটা থেকে রক্ষায় টিকার পাশাপাশি স্বাস্থ্য’বিধি মানতেই হবে। বিশেষ করে মাস্ক ব্যবহারের কোনো বিকল্প নেই। টিকা দিয়েও মাস্ক পরতে হবে। কারণ টিকা নেওয়ার পরও তো আক্রান্ত হচ্ছে। বিশেষ করে ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠী টিকা দেওয়ার পরও অন্যদের তুলনায় ঝুঁ’কিতে থাকবেই। আর এই ঝুঁ’কিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর মধ্যেই সবচেয়ে বেশি হচ্ছে ৫০ থেকে ৭০ বছর বয়সের মানুষ।

 

স্বাস্থ্য অধিদ’প্তর ও কালের কণ্ঠ আর্কাইভের তথ্য অনুসারে গত ২৫ জুলাই থেকে ১০ আগস্ট পর্যন্ত দেশে মোট শ’নাক্ত হয়েছে দুই লাখ ১১ হাজার ৬৮৭ জন। গড়ে দিনে শ’নাক্ত হয়েছে ১৪ হাজার ১১২ জন করে। অন্যদিকে ২৫ জুলাই থেকে ১০ আগস্ট পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছে দুই লাখ ৩৫ হাজার ৮৩৯ জন। দিনে গড়ে সু’স্থ হয়েছে ১৫ হাজার ৭২২ জন করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© ২০২১ | দৈনিক প্রতিবেদন কর্তৃক সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত

Design BY NewsTheme